ছুটির তালিকা ২০২০

ছুটির তালিকা ২০২০ঃ “ছুটি” শব্দটি যেন এক অদ্ভুত অনুভূতি এনে দেয়।  আমরা যারা পড়াশোনা করি অথবা চাকরি করি সপ্তাহের কর্ম দিনগুলোতে চিন্তা করতে থাকি কবে ছুটি পাব। ছুটি পেতে সবার ভালো লাগে।  ব্যস্ত জীবনের ক্লান্তি ছুটির মাধ্যমে দূর হয়ে যায় ।  সপ্তাহে পাঁচদিন কাজ করার পরে সপ্তাহ শেষে একদিন ছুটি যেন আরো পাঁচদিন কাজ করার শক্তি জুগিয়ে দেয় । ইচ্ছা শক্তি কে আরো প্রবল করে । 

বাংলাদেশ সরকার সাপ্তাহিক ছুটির পাশাপাশি বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান এবং অন্যান্য দিনে বিশেষ ছুটির ব্যবস্থা করেছে । ছুটির তালিকা নিচে দেখুন-

ছুটির তালিকা ২০২০

আমাদের দেশে যে যে ধরনের ছুটি রয়েছে ।

  1. সাপ্তাহিক ছুটি 
  2. ধর্মীয় ছুটি । 
  3. ঐচ্ছিক ছুটি ।

 যারা সরকারি চাকরি করেন তাদের জন্য অতিরিক্ত কিছু ছুটি আছে । 

এছাড়াও সরকার চাইলে যে কোন সময় সারা দেশে সাধারন ছুটি দিতে পারে ।

সরকারি ও বেসরকারি  ছুটির তালিকা ২০২০

সরকারি/বেসরকারি মাধ্যমিক ও নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহের ২০২০ শিক্ষাবর্ষের ছুটির তালিকা । 

 

ছুটি কেন প্রয়োজন?

কর্মব্যস্ত জীবনে ছুটির গুরুত্ব অপরিসীম । আপনি ইচ্ছা করলে একটানা 7 দিন কাজ করতে পারবেন না। যদিও করতে পারেন তাহলে পরের সাতদিন কাজের প্রতি মনোযোগ আসবে না । সপ্তাহে একদিন বা দুইদিন বিশ্রাম নেওয়া খুবই জরুরী ।

 বিভিন্ন মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি তার ইমপ্লোয়ীদের জন্য বিশেষ ছুটির ব্যবস্থা করে । এমপ্লয়ীদের বাহিরে ঘুরতে যাওয়ার ছুটি দেয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে যাওয়ার জন্য ছুটি দেয় । এর ফলে এমপ্লয়ীদের মনোবল বৃদ্ধি পায় এবং কাজের গতি বেড়ে যায় কাজের প্রতি তারা মনোযোগী হতে পারে ।

আপনার শরীর এবং মনকে সুস্থ রাখতে কাজের মাঝে সাপ্তাহিক বিরোধী অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ । যদি আপনার বস আপনাকে সাপ্তাহিক ছুটির দিনেও এমন ব্যস্ত রাখে তাহলে অবশ্যই আপনার বসের সাথে খোলামেলা আলোচনা করে বিষয়টি ঠিক করে নিন । একটা রোবট সারাদিন কাজ করতে পারে না ।

একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যারা সাপ্তাহিক ছুটি কাটান তাদের শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকে । তাদের সহজে শারীরিক বা মানসিক রোগ আঘাত করেনা ।

ছুটির সময় সাধারণত সবাই শুয়ে বসে দিন পার করে দেয়। অনেকেই আছেন এই সময়টুকু নষ্ট করেন না। কর্মব্যস্ত জীবনে এই ছুটির মধ্যে তারা তাদের মনের যে আকাঙ্ক্ষাগুলো থাকে তা পূরণ করে । যেমন
পরিবার অথবা বন্ধুদের সাথে ঘুরতে বের হওয়া।

  • আত্মীয়স্বজনের বাসায় যাওয়া।
  • বই পড়া।
  • খেলাধুলা করা।

অবসর সময়ে কি করবেন ? 

অবসর সময়ে আপনি আরও অনেক কিছু করতে পারবেন। বর্তমানে অনেকেই অবসর সময়কে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা, অনলাইনে কাজ ইত্যাদি করছে। আপনিও করতে পারবেন। অনলাইনে কাজ করে কিভাবে অবসর সময়ে টাকা রোজগার করা যায় তা জানতে আমাদের অনলাইনে আয় এই পোস্টটি পড়ুন। 

আমাদের পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে অবশ্যই নিচের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। নিত্যনতুন তথ্য প্রযুক্তির সাথে আপডেট থাকতে আমাদের সাথে থাকুন।

By Mahedi

আসসালামুয়ালাইকুম, আমার নাম মোঃ মেহেদী হাসান রনি। আমার বাসা পাবনা। আমি একজন ছাত্র । আমি পড়াশোনার পাশাপাশি লেখালেখি করতে খুব ভালোবাসি । আমার  বিভিন্ন বিষয়ে লেখালেখি করতে খুব ভালো লাগে। আমি যে সকল বিষয়ে লেখালেখি করে থাকি তা হল- খেলাধুলা, শিক্ষ্‌ রাজনীতি, স্বাস্থ্য ইত্যাদি । এটা আমার কোন পেশা না । আমার ভালো লাগে তাই আমি লেখালেখি করি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *