উন্নত এবং উচ্চ শিক্ষা প্রদানের লক্ষ্যে 2002 সালে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি তাদের যাত্রা শুরু করে। এটি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়টি ঢাকাতে অবস্থিত। রয়েছে নিজেদের নিজস্ব ক্যাম্পাস। তেজগাঁও সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি তাদের নিজস্ব বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। 2010 সালের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় নীতি অনুযায়ী প্রতিটা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাস থাকতে হবে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে নিজস্ব ক্যাম্পাস। বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের নানান রকম সুবিধা এবং স্কলারশিপের ব্যবস্থা রয়েছে। 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এর সুবিধা

কম খরচে ভালো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়

কম খরচে ভালো ইউনিভার্সিটির তালিকায় সাউথ ইস্ট ইউনিভার্সিটি ৫ ম তম । পড়াশনার মান খুবই ভালো ।

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় কোথায় অবস্থিত?

বাড়ী নং: ৬৪, রোড নং: ১৮, ব্লক: বি , বনানী, ঢাকা । 

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা এই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে পারবে। এছাড়াও 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এর উপর সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি। 

2010 সালে সরকার পতিতা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরীর জন্য নোটিশ পাঠায়। মোট 21 টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরি করে। সেই সময় এই বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব ক্যাম্পাস নির্মাণাধীন অবস্থায় ছিল। পরের বছর তা শেষ করা হয়। সরকার নির্মাণাধীন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস তালিকা প্রকাশ করে। সেখানে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এর নাম ছিল।

2012 সালে সরকার এই সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাস পরিদর্শন করে এবং সকল বিশ্ববিদ্যালয় কে নিজস্ব ক্যাম্পাস আছে বলে আখ্যায়িত করেন। সেই তালিকায় সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এর নাম রয়েছে। 

2013 সালে একটি দৈনিক পত্রিকায় 11 টি বিশ্ববিদ্যালয় প্রকাশ করা হয়। এই এগারটি বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব ক্যাম্পাস এই করতে পারেনি। তাই এদের নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করতে নিষেধ করা হয়। এই তালিকায় সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির নাম ছিল না। 

শিক্ষাবৃত্তি এবং স্কলার্শিপ

শিক্ষাবৃত্তি এবং স্কলারশিপের জন্য সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় অনেক সুনাম রয়েছে। শিক্ষার্থী জিপিএ 5 অথবা গোল্ডেন প্রাপ্ত সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় নিজ দায়িত্বে তাদের বৃত্তি প্রদান করে এবং পড়াশুনা শেষে বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য স্কলারশিপ প্রদান করে। এক তালিকায় বৃত্তি প্রদান এবং স্কলারশিপ প্রদানে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম প্রকাশ করা হয়। বাংলাদেশের সেরা 10 বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় নাম ছিল। 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় যেভাবে বৃত্তি প্রদান করে থাকে 

গোল্ডেন উত্তরা 100%, তার নিচে যাদের রেজাল্ট থাকে তাদের রেজাল্টের উপর নির্ভর করে তাদের বিক্রির পরিমাণ। যেমন-

৪.৮ -৪.৯৯= ৭০%

৪.৫০-৪.৭৯= ৩০% 

শিক্ষাবৃত্তি কাকে বলে? 

আপনি হয়তো স্কুল-কলেজে যে বৃত্তি পেয়েছে তা জানেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় বৃত্তি একটু অন্যরকম। আপনি যদি 70 পার্সেন্ট বৃদ্ধি পেয়ে থাকেন তাহলে আপনার টিউশন ফি থেকে 70 পার্সেন্ট টাকা মাফ করা হবে। অর্থাৎ আপনার টিউশন ফি যদি 10 হাজার টাকা হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে 3000 টাকা দিতে হবে। 

এই বৃত্তি আপনি ভর্তির সময় আবেদন করতে পারবেন এবং প্রতি সেমিস্টারে পরীক্ষার পরে বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। ভর্তির আগে আপনার এইচএসসি পরীক্ষার রেজাল্টের উপর আপনাকে বৃত্তি প্রদান করা হবে। ভর্তির পরে প্রতি সেমিস্টারের রেজাল্ট এর উপর নির্ভর করে আপনাকে বৃত্তি প্রদান করা হবে। 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হতে কি কি যোগ্যতা লাগে? 

সাউথইস্ট একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে অবশ্যই আপনাকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। 

এসএসসি এবং এইচএসসি তে কমপক্ষে জিপিএ ৩.০ পেতে হবে। অথবা এইচএসসি এবং এসএসসি মিলে আপনাকে জিপিএস ৬.০ পেতে হবে। তবেই আপনি সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির আবেদন করার যোগ্যতা পাবেন। 

কিভাবে সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির আবেদন করতে হয়? 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি আবেদন ফরম সারা হয়। এই আবেদন ফরম বিশ্ববিদ্যালয় অফিস থেকে সরাসরি অথবা সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করা যায়। 500 টাকা জমা দিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করতে হয়। আবেদনের সময় অবশ্যই উল্লেখ করে দিতে হবে আপনি কোন বিষয়ে পড়াশোনা করতে চান। এই বিশ্ববিদ্যালয় 12 টি বিষয় রয়েছে। যার উপর উচ্চ শিক্ষা অর্জন করা যায়। 

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার পরে আপনি যদি ভর্তির জন্য মনোনীত হন তাহলে আপনাকে সরাসরি সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক অফিসে যোগাযোগ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে গেলে আপনি ভর্তির সকল কার্যক্রম খুব সহজেই করতে পারবেন। ভর্তির খরচ 10 থেকে 12 হাজার টাকা। আপনি যে সাবজেক্টে পড়বেন সেই সাবজেক্ট এর ক্রেডিট অনুযায়ী আপনার টিউশন ফি জমা দিতে হবে। 

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এর সুবিধা

সাউথইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে উন্নত মানের ক্যান্টিন। এখানে উন্নত মানের খাবার শিক্ষার্থীদের পরিবেশন করা হয়। খাবারগুলো ফ্রী না। শিক্ষার্থীদের টাকা দিয়ে খাবার গুলো কিনে খেতে হবে। কিন্তু খাবারের দাম খুবই সীমিত। বাহিরের খাবার থেকে প্রায় ফোরটি পার্সেন্ট কম মূল্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যান্টিনে খাবার পাওয়া যায়। 

  • টিউশন ফি তুলনামুলক কম ।
  • ক্যাম্পাস  এর পরিবেশ খুবই মনোরম ।
  • শিক্ষকগন বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করে।
  • খেলার মাঠ ।
  • বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান ইত্যাদি

এছাড়াও রয়েছে উন্নত মানের লাইব্রেরী, নৈশকালীন কোর্স, টাকা লেনদেনের জন্য ব্যাংকিং ব্যবস্থা ইত্যাদি। 

সেমিস্টার ফি

সেমিস্টার ফি নির্ভর করে আপনার ক্রেডিট সংখ্যার উপর। ধরে নিচ্ছি আপনি ক্রেডিট সম্পর্কে জানেন । না জানলে এখানে দেখুন । 

বিষয়  প্রতি ক্রেডিট ফী 
টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ২,১০০ টাকা
আর্কিটেক ২,৯০০ টাকা
বিবিএ ৩,২৯০ টাকা
এল.এল.বি ২,০০০ টাকা
ইকোনোমিকস ১,০০০ টাকা
বিএ ইন ইসলামিক স্টাডিস ৪০০ টাকা
বাংলা ৪০০ টাকা
এমবিএ (রেগুলার) ৩,০০০ টাকা
এমবিএ (এক্সিকিউটিভ) ৩,০০০ টাকা
এমবিএ (ফ্রাইডে) ২,৫০০ টাকা
এমবিএ (ফর বিবিএ স্টুডেন্ট) ৩,০০০ টাকা
এমএ ইন ইসলামিক স্টাডিস (২ বছর) ৪৫০ টাকা
এমএ ইন ইসলামিক স্টাডিস (১ বছর) ৪৫০ টাকা
বিএড ৩০০ টাকা
এমএড ৩০০ টাকা
এল.এল.বি (পাস) ১,০০০ টাকা
ইংলিশ ১,৫০০ টাকা
ফার্মেসী ২,৯৬০ টাকা
ইইই ৩,০০০ টাকা
আইটিই ২,৩০০ টাকা
সিএসই ২,৩০০ টাকা
এমডিএস ১,৮০০ টাকা
এমএ ইন ইংলিশ ২,০০০ টাকা
এল.এল.এম ১,৪০০ টাকা

By Mahedi

লেখালেখি আমার সখ ও পেশা। আমি টেক্সটাইল এর উপর বিএসসি করেছি। কিন্তু পেশা হিসেবে ব্লগিংকে বেছে নিয়েছি। বর্তমানে এটি খুবই সন্মানজনক পেশা। আমি সাধারণত খেলাধুলা, ছবি, পড়াশোনা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে লিখতে ভালবাসি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *